ওমানের সাথে শেষ হলো বাংলাদেশের খেলা, জেনে নিন ফলাফল

বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের ম্যাচে মঙ্গলবার ওমানের মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ।

শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিপক্ষে তেমন একটা প্রতিরোধ গড়তে পারল না জেমি ডের দল।

নিজেদের সেরাটা দিয়ে অসম প্রতিপক্ষের কাছ থেকে পয়েন্ট ছিনিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনায় মাঠে নামে তপু বর্মণরা।

রক্ষণাত্মক খেলা খেলে লক্ষ্য ছিল অন্তত ড্র। কিন্তু তা আর হলো না। ৩ গোল হজম করে বাছাইপর্ব শেষ করল বাংলাদেশ।

কাতারের দোহায় জসিম বিন হামাদ স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার রাত ১১টায় বাংলাদেশের বিপক্ষে নামে ওমান।আগের ম্যাচের একাদশে ৯ পরিবর্তন এনে খেলতে নামে ওমান।

আজ চোট ও কার্ডের কারণে বাংলাদেশ দলে ছিলেন না সোহেল রানা, জামাল ভূইয়া, মাশুক মিয়া জনি, রহমত মিয়া। তাই দলের অবস্থা শুরু থেকেই ছিল নড়বড়ে।

এমন দুর্বল দল পেয়ে শুরু থেকেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলে ওমান।

১৬-১৮ মিনিটের মধ্যে টানা চারটি কর্ণার আদায় করে ওমান। একটিতে সফল হয়নি।

তবে ম্যাচের ২২ মিনিটে সফল হন আল গাফরি। ডান প্রান্ত থেকে সংঘবদ্ধ এক আক্রমণে ওমানের উইঙ্গারের বাড়ানো ক্রসে বল পান আল গাফরি। লাল-সবুজের দুই ডিফেন্ডারের পেছন থেকে এসে গোলরক্ষকের খুব কাছ থেকে প্লেসিং শট নেন তিনি। বল জড়ায় বাংলাদেশের জালে।

এরপর ওমান বাংলাদেশকে আরও চেপে ধরে। একের পর এক আক্রমণে ব্যস্ত রাখে গোলরক্ষক জিকোকে। জিকোর দৃঢ়তায় ব্যবধান বাড়েনি প্রথমার্ধে।

১-০ গোলের ব্যবধানে বিরতিতে যায় দুই দল। প্রথমার্ধে ওমানের দখলে বল ছিল ৭৫ ভাগের বেশি।

দ্বিতীয়ার্ধে নেমে আরও দুটি গোল হজম করে বাংলাদেশ। কিন্তু শোধ দিতে পারেনি একটিও।

৬০তম মিনিটে দ্বিতীয় গোল হজম করে বাংলাদেশ। সতীর্থের কাটব্যাক একজনের পা হয়ে পাওয়ার পর ডি-বক্সে ফাঁকায় বল পান আল হাজরি। সুযোগ কাজে লাগাতে ভুল করেননি তিনি।

ওই গোলের পরেই আল হাজরি জোড়া গোলের সুযোগ তৈরি করেন। ভাগ্য সহায় হয়নি তার। পোস্টে লেগে বল ফিরে আসে এই ফরোয়ার্ডের। ভাগ্যগুণে তৃতীয় গোল হজম হওয়া থেকে ওই মুহূর্তে বেঁচে যায় তপুর দল। তবে সেই সৌভাগ্য বেশিক্ষণ টেকেনি। ৭৩তম মিনিটে খালিদ আল হাজরির শট আটকালেও ৮০তম মিনিটে ব্যর্থ হন।

আব্দুল আজিজের পাস ধরে সুলাইমান আল আকবারি ছোট করে বাড়ান আল হাজরিকে। আগে জিকো পোস্ট ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ায় অনায়াসে নিজের জোড়া গোল পূরণ করেন এই ফরোয়ার্ড।

রেফারির শেষ বাঁশিতে ৩-০ হারের বিষাদ নিয়ে বাছাই শেষ করে জেমি ডের দল।

আগের লেগে ওমানের বিপক্ষে ৪-১ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ দল। সেই ম্যাচে বিপলু আহমেদ গোল করেছিলেন।

সেই অনুযায়ী বিপলু ও রহমত মিয়ার অনুপস্থিতিতে আগের তুলনায় ভালোই খেলেছে বাংলাদেশ।

আট ম্যাচে ৬ হার ও দুই ড্রয়ে ২ পয়েন্ট নিয়ে ‘ই’ গ্রুপের তলানিতে থেকে বাছাই শেষ করল বাংলাদেশ। এশিয়ান কাপের বাছাইয়ের পরের ধাপে খেলতে হলে দলকে পেরুতে হবে প্লে-অফের বৈতরণী।

অন্য দিকে ৮ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে ওমান। ৭ জয় ও এক ড্রয়ে ২২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপে শীর্ষে বিশ্বকাপের স্বাগতিক কাতার। ৭ পয়েন্ট নিয়ে ভারত তৃতীয় ও ৬ পয়েন্ট নিয়ে আফগানিস্তান চতুর্থ হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here